২০২৬ বিশ্বকাপ ফুটবল কবে হবে, ২০২৬ ফুটবল বিশ্বকাপ কোথায় অনুষ্ঠিত হবে

আগামী ২০২৬ সালে অনুষ্ঠিত হবে বিশ্বকাপ ফুটবলের আসর। তবে ফুটবলের মহাযজ্ঞ বিশ্বকাপ ফুটবল ২০২৬ সালে আবারও ফিরছে জুন ও জুলাই মাসের মধ্যে। আর এই আসরটি হবে যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, মেক্সিকো সহ তিন আয়োজকের মধ্যে। এই তিনটি দেশের মোট ১৬টি শহরে আয়োজন হবে বিশ্বকাপের সবগুলো ম্যাচ।

এদিকে সব ঠিক থাকলে কানাডাতে অনুষ্ঠিত হবে ফুটবলের প্রথম বিশ্বকাপ। এছাড়াও আয়োজের তালিকায় থাকা দেশ মেক্সিকোতে হবে বসবে তৃতীয়বারের মতো আসরটি। এর আগেও মেক্সিকো ১৯৭০ ও ১৯৮৬ সালে ফুটবল বিশ্বকাপ আয়োজন করেছে। আয়োজক দেশ যুক্তরাষ্ট্রে বসবে দ্বিতীয় বারের মতো আসরটি এর আগে ১৯৯৪ সালে যুক্তরাষ্ট্রে ফুটবল বিশ্বকাপ হয়েছে।

২০২৬ বিশ্বকাপ ফুটবলে কয়টি দল অংশ নিবে

মহাযজ্ঞের পরবর্তী আসর বিশ্বকাপ ফুটবল ২০২৬ সালে প্রথমবারের মতো আয়োজক হিসেবে থাকছে একাধিক দেশ। ফিফা জানাল, বিশ্বকাপ ফুটবল ট্রফির জন্য এ বিশ্বকাপে লড়াই করবে ৪৮ দেশ। এতে করে মোট ম্যাচের সংখ্যা দাঁড়াবে ১০৪ এবং গ্রুপ হবে ১২টি। প্রতি গ্রুপে সেক্ষেত্রে দল থাকতে পারে ৪টি। এই ফরম্যাট অনুসরণ করা হবে আগামী ২০২৬ বিশ্বকাপে।

বিশ্বকাপ ফুটবল ২০২৬ সালে যেভাবে নকআউট পর্ব হবে

যেহেতু পূর্বেই উল্লেখ করা হয়েছিলো ২০২৬ বিশ্বকাপে লড়াই করবে ৪৮ দেশ। প্রতি গ্রুপে থাকা ৪টি দলের মধ্যে পয়েন্ট তালিকার সেরা দুই দল উঠবে শেষ বত্রিশে।

সেখানে দেখা হবে ১২টি গ্রুপ থেকে আসা তৃতীয় হওয়াদের মধ্যে সেরা আটটি দল। এই ধাপ থেকে শুরু হবে ২০২৬ সালের বিশ্বকাপের নকআউট পর্ব। শেষ বত্রিশের পর যথাক্রমে শেষ ষোলো, কোয়ার্টার ফাইনাল, সেমিফাইনাল ও ফাইনাল পর্যায়ক্রমে অনুষ্ঠিত হবে।

কেবল ২০২৬ সালের প্রথমবারের মতো একসাথে ৪৮ দেশ অংশ নিলেও পূর্বে অর্থাৎ (১৯৯৮-২০২২) সাল পর্যন্ত কেবলমাত্র ৩২ দল নিয়েই ফুটবল বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে গ্রুপ ছিলো ৮টি এবং ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়ে ছিলো ৬৪টি।

তিন দেশের আয়োজকদের তালিকার মধ্যে দৌঁড়ে এগিয়ে আছে যুক্তরাষ্ট্র। সেখানের ১১টি শহরে আয়োজিত হবে বিশ্বকাপের ৬০ ম্যাচ। এরপর মেক্সিকোর তিনটি এবং কানাডার দুইটি শহরে বিশ্বকাপের ১০ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে।

২০২৬ বিশ্বকাপ ফুটবলের আয়োজক দেশের কোনো কোন শহরগুলোতে ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে

যুক্তরাষ্ট্র

১. শহর : আটলান্টা
স্টেডিয়াম : মার্সিডিজ-বেঞ্জ স্টেডিয়াম
দর্শক ধারণক্ষমতা : ৭১,০০০

২. শহর : বোস্টন
স্টেডিয়াম : জিলেট স্টেডিয়াম
দর্শক ধারণক্ষমতা : ৬৮,৭৫৬

৩. শহর : ডালাস
স্টেডিয়াম : এটি অ্যান্ড টি স্টেডিয়াম
দর্শক ধারণক্ষমতা : ৮০,০০০

৪. শহর : হিউস্টন
স্টেডিয়াম : এনআরজি স্টেডিয়াম
দর্শক ধারণক্ষমতা : ৬৮,৫০০

৫. শহর : কানসাস সিটি
স্টেডিয়াম : অ্যারোহেড স্টেডিয়াম
দর্শক ধারণক্ষমতা : ৭৬,৪১৬

৬. শহর : লস অ্যাঞ্জেলস
স্টেডিয়াম : রোজ বোল স্টেডিয়াম বা সো-ফাই স্টেডিয়াম
দর্শক ধারণক্ষমতা : ৯০,৮৮৮/৭০,২০০

৭. শহর : নিউইয়র্ক/ নিউজার্সি
স্টেডিয়াম : মেটলাইফ স্টেডিয়াম
দর্শক ধারণক্ষমতা : ৮২,৫০০

৮. শহর : মায়ামি
স্টেডিয়াম : হার্ড রক স্টেডিয়াম
দর্শক ধারণক্ষমতা : ৬৫,৩২৬

৯. শহর : ফিলাডেলফিয়া
স্টেডিয়াম : লিঙ্কন ফিন্যান্সিয়াল স্টেডিয়াম
দর্শক ধারণক্ষমতা : ৬৯,৭৯৬

১০. শহর : সান ফ্রান্সিসকো
স্টেডিয়াম : বে এরিয়া লেভিস স্টেডিয়াম
দর্শক ধারণক্ষমতা : ৬৮,৫০০

১১. শহর : সিয়াটল
স্টেডিয়াম : লুমেন ফিল্ড স্টেডিয়াম
দর্শক ধারণক্ষমতা : ৭২,০০০

কানাডা

১. শহর : টরন্টো
স্টেডিয়াম : সিয়াটল লুমেন ফিল্ড
দর্শক ধারণক্ষমতা : ৭২,০০০

২. শহর : ভ্যাঙ্কুভার
স্টেডিয়াম : বিসি প্লেস
দর্শক ধারণক্ষমতা : ৫৪,৫০০

মেক্সিকো

১. শহর : গুয়াদালাহারা
স্টেডিয়াম : এস্তাদিও আকরোন
দর্শক ধারণক্ষমতা : ৪৬,২৩২

২. শহর : মেক্সিকো সিটি
স্টেডিয়াম : এস্তাদিও আজতেকা
দর্শক ধারণক্ষমতা : ৮১,০৭০

৩. শহর : মন্তেরেই
স্টেডিয়াম : এস্তাদিও বিবিভিএ বানকোমার
দর্শক ধারণক্ষমতা : ৫১,৩৪৮

২০২৬ বিশ্বকাপ ফুটবল কবে হবে, ২০২৬ ফুটবল বিশ্বকাপ কোথায় অনুষ্ঠিত হবে

২০২৬ সালের ফিফা বিশ্বকাপ ফুটবল ফিক্সচার

২০২৬ ফুটবল বিশ্বকাপের অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ২৩তম আসর। এই আসরটি সব ঠিক থাকলে ২০২৬ সালের ১১ জুন, বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত হবে। যুক্তরাষ্ট্রে বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে ১৯ জুলাই, রোববার।

শেষ কথা

আগামী ২০২৬ সালের বিশ্বকাপের ২৩তম আসরটি হবে ইতিহাসের দ্বিতীয়তম যৌথ আয়োজন যা ৩৯ দিন অর্থাৎ সবমিলিয়ে ৫৬ দিন সম্পন্ন হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এর পূর্বে ২০২২ সাল পর্যন্ত ৩২ দিনে সম্পন্ন করা হতো। এশিয়া মহাদেশে ২০০২ সালে অনুষ্ঠিত প্রথম বিশ্বকাপ যা জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়ায় ফুটবল বিশ্বকাপ যৌথভাবে আয়োজন করেছিল। তবে আগামী ফিফা ওয়ার্ল্ড কাপ ২০২৬ এর ফর্ম্যাট পুনর্বিবেচনা করা হবে বলে শোনা যাচ্ছে।

Leave a Comment