চতুর্থ শ্রেণি: বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় | অধ্যায়-১৬: আমাদের সংস্কৃতি

এ অধ্যায়টি সম্পর্কে অল্প কথায় জানতে চেষ্টা করি:

আমরা যা করি, যেভাবে করি তাই আমাদের সংস্কৃতি। বাংলাদেশের বাঙালিদের পাশাপাশি ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীদের সাংস্কৃতিক বৈশিষ্ট্য রয়েছে। শাড়ি, সালোয়ার-কামিজ এদেশের মেয়েদের প্রধান পোশাক। আর লুঙ্গি, পাজামা-পাঞ্জাবি ও শার্ট-প্যান্ট এদেশের ছেলেদের প্রধান পোশাক। ভাত-মাছ-ডাল ও নানা প্রকার মিষ্টি আমাদের দেশীয় খাদ্য। আকিকা, মুখেভাত, জন্মদিন ইত্যাদি আমাদের কয়েকটি সামাজিক আচার-অনুষ্ঠান। বাউল, ভাটিয়ালিজারি-সারি, কবিগান, পালাগান ইত্যাদি আমাদের লোক সংগীতের অংশ। দেশীয় সংস্কৃতির চর্চায় আমরা যত্নশীল হব।


■ অল্প কথায় উত্তর দাও:

১. বাঙালির সংস্কৃতির দুইটি উপাদানের নাম লেখ।

উত্তর: বাঙালির সংস্কৃতির দুইটি উপাদান হলো- ভাষা ও পোশাক।

২. উৎসবে আমরা কোন ধরনের মিষ্টি খাই?

উত্তর: উৎসবে আমরা সাধারণত দই, পায়েস, রসগোল্লা, চমচম ও ক্ষীর জাতীয় মিষ্টি খাই।

৩. লোকসংগীতের দুইটি ধারার নাম লেখ।

উত্তর: লোকসংগীতের দুইটি ধারা হলো- ভাটিয়ালি ও ভাওয়াইয়া।

৪. আমাদের সংস্কৃতির জন্য কী কী হুমকি আছে?

উত্তর: দেশীয় সংস্কৃতি সংরক্ষণের অভাবে ও বিদেশি সংস্কৃতির প্রভাবে আমাদের সংস্কৃতি আজ হুমকির মুখে। বর্তমান প্রজন্ম তাদের দেশীয় সংস্কৃতিতে বড় না হয়ে পাশ্চাত্য সংস্কৃতিতে বড় হচ্ছে। এর ফলে আমাদের অতীত ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি হারিয়ে যেতে পারে।

■ প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও:

১. বাঙালি সংস্কৃতির কোন বিষয়টি তোমার সবচেয়ে পছন্দের? কেন?

উত্তর: বাঙালি সংস্কৃতির সাথে মিশে আছে নানা প্রকার গান বাজনা। লোকসংগীত বাংলাদেশের প্রাণ। ক্ষেতে লাঙল দিতে দিতে এ দেশের কৃষকেরা গান গায়। নৌকা বাইতে বাইতে মাঝি গান গায়। এক গ্রাম থেকে অন্য গ্রামে যেতে যেতে বাউলরা গান গায়। এদেশের রয়েছে কিছু নিজস্ব সংগীত; যেমন- জারি, সারি, বাউল, ভাটিয়ালি, ভাওইয়া, গম্ভীরা। এগুলো আমাদের প্রধান লোকসংগীত। বাঙালি সংস্কৃতির এ বিষয়টি আমার সবচেয়ে পছন্দের।

২. তোমার মতে আমাদের সংস্কৃতির প্রধান প্রধান বৈশিষ্ট্য কী কী?

উত্তর: জীবনের সকল কিছুই সংস্কৃতির অংশ। বাংলাদেশের সংস্কৃতির প্রধান প্রধান বৈশিষ্ট্য হলো-

ক. এদেশের হিন্দু, মুসলিম, বৌদ্ধ, খ্রিষ্টান সবাই বাংলা ভাষার মাধ্যমে একসূত্রে গাঁথা।

খ.  বাংলাদেশের মৈয়েরা ঐতিহ্যবাহী পোশাক হিসেবে শাড়ি খুব পছন্দ করে।

গ. এ দেশের পুরুষেরা গ্রামাঞ্চলে এবং বাড়িতে সাধারণত লুঙ্গি পরেন।

ঘ. বৃষ্টির দিনে খিচুড়ি খাওয়া বাঙালিদের সংস্কৃতির অংশ।

ঙ. বিভিন্ন উৎসব অনুষ্ঠানে লোকসংগীত পরিবেশন, যাত্রা, পালাগান, কীর্তন আর মুর্শিদি গানের আসর এদেশের সংস্কৃতির অন্যতম বৈশিষ্ট্য।

■ ক. সংক্ষিপ্ত উত্তর প্রশ্ন:

১. ভাষা কী?

উত্তর: মানুষের মনের ভাব প্রকাশের মাধ্যম হচ্ছে ভাষা।

২. বাংলা ভাষার মাধ্যমে কারা একসূত্রে গাঁথা?

উত্তর: এদেশের মুসলিম, হিন্দু, খ্রিষ্টান ও বৌদ্ধ সবাই বাংলা ভাষার মাধ্যমে একসূত্রে গাঁথা।

৩. বাঙালি মেয়েদের প্রধান পোশাক কী?

উত্তর: বাঙালি মেয়েদের প্রধান পোশাক শাড়ি।

৪. বাঙালির প্রধান খাবার কী?

উত্তর: মাছ ও ভাত বাঙালির প্রধান খাবার।

৫. ঈদের দিনে মুসলমানদের ঘরে কোন মিষ্টি জাতীয় খাবার তৈরি হয়?

উত্তর: ঈদের দিনে মুসলমানদের ঘরে সেমাই মিষ্টি জাতীয় খাবার তৈরি হয়।

৬. কোন খাবারটি বাঙালিদের সংস্কৃতিতে পরিণত হয়েছে?

উত্তর: খিচুড়ি খাওয়া বাঙালিদের সংস্কৃতিতে পরিণত হয়েছে।

৭. কোন সংগীতকে বাংলাদেশের প্রাণ বলা হয়?

উত্তর: লোকসংগীতকে বাংলাদেশের প্রাণ বলা হয়।

৮. যাত্রা এবং পালাগান কোথায় অনুষ্ঠিত হয়?

উত্তর: গ্রামের মেলা আর অনুষ্ঠানগুলোতে যাত্রা এবং পালাগান অনুষ্ঠিত হয়।

৯. কীভাবে আমাদের সংস্কৃতি রক্ষা করা সম্ভব?

উত্তর: আমরা সবাই সচেতন হলে আমাদের সংস্কৃতি রক্ষা করা সম্ভব।

১০. মুখেভাত কী ধরনের অনুষ্ঠান?

উত্তর: ছোট বাচ্চাদের প্রথম ভাত মুখে দেওয়ার অনুষ্ঠান হচ্ছে মুখেভাত।

১১. কখন গায়ে হলুদ অনুষ্ঠান হয়?

উত্তর: বিয়ের আগে গায়ে হলুদ অনুষ্ঠান হয়।

১২. কোন ধরনের অনুষ্ঠান বাঙালিরা মিষ্টি দিয়ে উদযাপন করে থাকে?

উত্তর: যে কোনো আনন্দ অনুষ্ঠান, আনন্দ সংবাদ বাঙালিরা মিষ্টি দিয়ে উদযাপন করে থাকে।

১৩. বাংলার গ্রাম-গঞ্জ কী ধরনের গানে মুখর হয়ে থাকে?

উত্তর: আবহমান কাল ধরে বাংলার গ্রাম-গঞ্জ জারি, সারি, বাউল, ভাটিয়ালি, ভাওয়াইয়া, গম্ভীরা ইত্যাদি গানের সুরে মুখর হয়ে থাকে।

১৪. গ্রামে ও ঘরে এদেশের পুরুষেরা প্রধানত কী পরে থাকে?

উত্তর: গ্রামে ও ঘরে এদেশের পুরুষেরা প্রধানত লুঙ্গি পরে তাকে।

১৫. ভাতের সাথে আমরা কী খাই?

উত্তর: ভাতের সাথে আমরা ডাল, মাছ, শাকসবজি এবং কখনও কখনও মাংস খেয়ে থাকি।

১৬. আমাদের প্রধান লোকসংগীত কোনগুলো?

উত্তর: জারি, সারি, বাউল, ভাটিয়ালি, ভাওয়াইয়া, গম্ভীরা আমাদের প্রধান লোকসংগীত।

১৭. আমাদের সংস্কৃতি কেন তার ঐতিহ্য হারাতে বসেছে?

উত্তর: বিদেশি সংস্কৃতির প্রভাবে এবং দেশি সংস্কৃতি সংরক্ষণের অভাবে আমাদের সংকৃতি তার ঐতিহ্য হারাতে বসেছে।


চতুর্থ শ্রেণি: বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয়

■ ঘ. কাঠামোবদ্ধ উত্তর

প্রশ্ন: ১. বাঙালিরা উৎসব অনুষ্ঠানে কী খেতে ভালোবাসে? বৃষ্টির দিনে বাঙালিদের ঐতিহ্যবাহী খাবার কোনটি? বাঙালিদের খাবার সম্পর্কে চারটি বাক্য লেখ।

উত্তর: বাঙালিরা উৎসব অনুষ্ঠানে মিষ্টি খেতে ভালোবাসে। বৃষ্টির দিনে বাঙালিদের ঐতিহ্যবাহী খাবার খিচুড়ি। বাঙালিদের খাবার সম্পর্কে চারটি বাক্য হলো-

১. বাঙালিদের প্রধান খাদ্য হলো ভাত।

২. গরমের দিনে বিশেষ করে গ্রামে কৃষক পরিবারে পান্তা ভাত, কাঁচা মরিচ বা ভর্তা দিয়ে খেয়ে থাকে।

৩. বাঙালিরা ভাতের সাথে ডাল, মাছ, শাকসবজি আবার কখনও মাংস খেয়ে থাকে।

৪. উৎসব অনুষ্ঠানে পোলাও-মাংস, বিরিয়ানি, খিচুড়ি খেয়ে থাকে।

২. সংস্কৃতি কাকে বলে? বাংলাদেশের সংস্কৃতি কেন তার ঐতিহ্য হারাতে বসেছে? পাঁচটি কারণ লেখ।

উত্তর: সংস্কৃতি হচ্ছে আমাদের প্রতিদিনের জীবনযাপনের ধরন। এর মধ্যে রয়েছে ভাষা, পোশাক, খাদ্য, আচার অনুষ্ঠান, গানবাজনাসহ আরও অনেক কিছু।

বাংলাদেশের সংস্কৃতি কেন তার ঐতিহ্য হারাতে বসেছে এর পাঁচটি কারণ হলো-

১. লোকসংস্কৃতির বিভিন্ন বিষয় চর্চা না করা।

২. লোকসংস্কৃতির প্রতি আস্থা না রাখা।

৩. লোকসংস্কৃতির ঐতিহ্যকে অবহেলা করা।

৪. বিদেশি সংস্কৃতির প্রতি ঝুঁকে পড়া।

৫. সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে সদিচ্ছার অভাব।

৩. বাংলাদেশের সংস্কৃতি কাকে বলে? জন্মদিনের অনুষ্ঠান তুমি কীভাবে পালন কর চারটি বাক্যে লেখ।

উত্তর: বাংলাদেশের সংস্কৃতি হচ্ছে এদেশের জনগণের জীবনযাপনের ধরন। এর মধ্যে রয়েছে ভাষা, পোশাক, খাদ্য, আচার-অনুষ্ঠান, গান-বাজনাসহ আরও অনেক কিছু। আমাদের দেশে বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠী ও ধর্মের মানুষের নিজস্ব সংস্কৃতি রয়েছে। এগুলো সব মিলিয়েই বাংলাদেশের সংস্কৃতি।

জন্মদিনের অনুষ্ঠান বাংলাদেশের সংস্কৃতির একটি অংশ। আমি খুব উৎসবমুখর পরিবেশে এ অনুষ্ঠান পালন করি। যথা

১. অনুষ্ঠানের আগে বন্ধু-বান্ধবদের দাওয়াত করি।

২. জন্মদিন উপলক্ষে নানা রঙের বেলুন দিয়ে ঘর সাজাই।

৩. বন্ধুদের নিয়ে জন্ম দিনের কেক কাটি।

৪. বন্ধুরা সবাই মিলে হাততালির মাধ্যমে উৎসবটি পালন করি।

৪. সংস্কৃতি কী? আমরা কিসের মাধ্যমে মনের ভাব প্রকাশ করি? বাঙালি মেয়েদের পোশাক সম্পর্কে তিনটি বাক্য লেখ।

উত্তর: সংস্কৃতি হচ্ছে আমাদের প্রতিদিনের জীবনযাপনের ধরন। আমরা ভাষার মাধ্যমে মনের ভাব প্রকাশ করি।

বাঙালি মেয়েদের পোশাক সম্পর্কে তিনটি বাক্য হলো-

১. শাড়ি বাংলাদেশের মেয়েদের ঐতিহ্যবাহী পোশাক।

২. র্তমানে অনেক বাঙালি মেয়েই বিশেষত কম বয়সী মেয়েরা সালোয়ার-কামিজ পরতে পছন্দ করে।

৩. ছোট মেয়েদের অনেকেই ফ্রক, স্কার্ট ইত্যাদি পরে।

৫. উৎসব-অনুষ্ঠানে আমরা কী খেতে ভালোবাসি? আমাদের উৎসব-অনুষ্ঠানের অপরিহার্য অঙ্গ কী? এ সম্পর্কে তিনটি বাক্য লেখ।

উত্তর: উৎসব-অনুষ্ঠানে আমরা মিষ্টি খেতে ভালোবাসি।

রকমারি মিষ্টি ও মিষ্টিজাত দ্রব্য আমাদের উৎসব-অনুষ্ঠানের অপরিহার্য অঙ্গ।

এ সম্পর্কে তিনটি বাক্য হলো-

১. যেকোনো আনন্দ অনুষ্ঠান, আনন্দ সংবাদ আমরা সাধারণত মিষ্টি দিয়ে উদযাপন করে থাকি।

২. আমাদের মিষ্টি খাবার প্রধানত দুধের তৈরি।

৩. এর মধ্যে রয়েছে দই, পায়েস, রসগোল্লা, চমচম, ক্ষীর ইত্যাদি।

৬. কোন ধরনের সংগীত বাংলাদেশের প্রাণ? মাঝি কখন গান গায়? আমরা আমাদের সংস্কৃতিকে রক্ষা করব কেন? তিনটি বাক্যে লেখ।

উত্তর: লোকসংগীত বাংলাদেশের প্রাণ। মাঝি নৌকা বাইতে বাইতে গান গায়। আমরা আমাদের সংস্কৃতিকে রক্ষা করব।

কারণ—

১. আমাদের সংস্কৃতি আমাদের প্রাচীন ঐতিহ্যের ধারক।

২. সংস্কৃতির মাঝেই আমাদের স্বকীয়তা বিদ্যমান।

৩. সংস্কৃতিকে রক্ষা করতে পারলেই আমরা আমাদের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে পারব।

৭. সংস্কৃতি বলতে কী বুঝায়? বাংলাদেশের সংস্কৃতি কেমন? তিনটি বাক্যে ব্যাখ্যা কর।

উত্তর: সংস্কৃতি শব্দটির ইংরেজি প্রতিশব্দ হলো Culture। এর আভিধানিক অর্থ হলো মানবীয় বৈশিষ্ট্যের উৎকর্ষ সাধন।

বাংলাদেশের সংস্কৃতি সম্পর্কে তিনটি বাক্য হলো-

১. সংস্কৃতি হলো মানবসৃষ্ট এমন সব কৌশল বা উপায় যার মাধ্যমে সে তার উদ্দেশ্য চরিতার্থ করে।

২. সংস্কৃতি হচ্ছে আমাদের প্রতিদিনের জীবনযাপনের ধরন।

৩. এর মধ্যে রয়েছে আমাদের ভাষা, পোশাক, খাদ্য, আচার-অনুষ্ঠান, গান-বাজনাসহ আরও অনেক কিছু।

Leave a Comment